জুতো জোড়া হাতে নিয়ে দৌড়ে গিয়ে গাড়িতে ওঠে রক্ষা পেলেন পরীমনি

প্রথমদিনেই মোশাররফ করিম, পরীমনি, জিয়াউল রোশান অভিনীত ছবিটি দেখতে বিভিন্ন হলে দর্শকের উপচেপড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। পুরনো ঢাকার ঐতিহ্যবাহী সিনেমা হল চিত্রামহলে তিনটার শো শেষে দর্শক হল থেকে বের হচ্ছেন, অপরদিকে নতুন শো শুরু হবে শিগগির। দুই শোয়ের দর্শকের দৃষ্টি চলে ছবির নায়িকা পরীমনি, রোশানসহ অন্যদের দিকে। সবাই হই হই করে ছুটে এলো নায়ক-নায়িকা দেখতে। মুহূর্তেই মানবস্রোতে ভেসে যাওয়ার উপক্রম হলো। পরী-রোশানরা দর্শকের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করেছিলেন, পারছিলেন না। কিন্তু মানবস্রোত ডিঙিয়ে বের হতেও পারছিলেন না। এক পর্যায়ে চিৎকার করে ওঠেন পরীমনি। সন্তানসম্ভবা অভিনেত্রীকে রক্ষায় এগিয়ে এলো ‘মুখোশ’ টিমের সদস্যরা। মুহূর্তে মানবপ্রাচীর তৈরি করেন তারা।

কোনোরকমে পায়ের জুতো জোড়া খুলে হাতে তুলে নিলেন পরী! এক দৌড়ে গিয়ে ওঠেন একটু দূরে পার্ক করা নীল রঙের গাড়িতে। দর্শক-ভক্তরা এবার ছুটে গেল গাড়ির দিকে। পরীমনি-রোশানসহ অন্যদের অনেকক্ষণ আটকে রাখল ভক্তরা। এই সময়ের একটি ভিডিও ‘মুখোশ’ ছবির ফেসবুক পেজে পোস্ট করা হয়েছে, শিরোনাম ‘অল্পের জন্য রক্ষা’। ভিডিওটি শেয়ার করে পরীর অনেক শুভাকাঙ্খীই আঁতকে উঠেছেন।

সন্তানসম্ভবা পরীর এভাবে মানবসমুদ্রে সামনে যাওয়া উচিত হয়নি, এমনটাই মত অনেকের। তবে পরীমনি গতকালের ঘটনা নিয়ে খুব একটা চিন্তিত নন। বলেন, ‌‘এটাই তো মজা! নায়ক-নায়িকা হলে যাবে, দর্শক তাদের আটকে না রাখলে তারা কীসের নায়ক-নায়িকা! আমার তো খুব ভালো লেগেছে। সিনেমায় এমনটিই তো হওয়া উচিত। চিত্রামহল হলের আগে আমরা গিয়েছিলাম মধুমিত হলে, সেখানেও দেখেছি অনেক দর্শক এসেছেন ছবিটি দেখতে। দর্শক আমাদের ছবিটি দেখতে আসছেন, তাদের প্রতি আমরা সত্যিই কৃতজ্ঞ।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.