‘জায়েদের সব প্রমাণ আছে, সময় হলে আমার ছেলে সব দেখাবে’

সোমবার এক অডিওবার্তায় জায়েদ খানের বিরুদ্ধে ওমর সানীর আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন চিত্রনায়কা মৌসুমী। সেখানে স্বামী ওমর সানীকে ‘ভাই’ বলেও সম্বোধন করেন ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ ছবির নায়িকা মৌসুমী।বিষয়টি নিয়ে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া জানতে যোগাযোগ করা হয় ওমর সানীর সঙ্গে। ওমর সানী বলেন, ‘আমি অডিও বার্তা শুনেছি, সে কেন বা কী কারণে তার স্বামীর বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে, সে-ই ভালো বলতে পারবে। সে আমার সন্তানের মা, তার প্রতি আমার সম্মান আছে। কিন্তু আমার কাছে সব তথ্য-প্রমাণ আছে, আমার ছেলে তা দেখাবে আপনাদের।’

ওমর সানী বলেন, ‘মৌসুমী এখনও আমার স্ত্রী। আমার সন্তানের মা সে। আমি তাকে অসম্মান করে কিছু বলতে চাই না। তার প্রতি সম্মান ছিলো, আছে।’কথায় কথায় ওমর সানী জানান, তাদের মধ্যেকার সম্পর্ক এখন ভালো নেই। মনোমালিন্য চলছে, যা সব পরিবারে থাকে..।আপনারা এখন একসঙ্গে থাকছেন কিনা, এমন প্রশ্নে ওমর সানি বলেন, ‘হ্যাঁ, হ্যাঁ, একসঙ্গে থাকব না কেন! একই ছাদের নিচে আছি। আমার বাসায় ১১টি সিসিটিভি ক্যামেরা আছে.. ফুটেজ চাইলে সব দেখাব।’এরআগে, রোববার সন্ধ্যায় অভিনেতা জায়েদ খানের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি বরাবর অভিযোগ জানান ওমর সানী। সেখানে তিনি বলেন, জায়েদ খান তার সুখের সংসার ভাঙার চেষ্টা করছেন, তার স্ত্রী মৌসুমীকে ডিস্টার্ব করছেন।

অভিনেতা ও প্রযোজক মনোয়ার হোসেন ডিপজলের ছেলের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে চিত্রনায়ক ওমর সানীকে পিস্তল বের করে গুলি করার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ ওঠেছে জায়েদ খানের বিরুদ্ধে। গত ১০ জুন রাজধানীর বসুন্ধরা কনভেনশন সেন্টারে ওই ঘটনার সময় উপস্থিত কয়েক জনের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যমে এ বিষয়ে খবর প্রকাশিত হয়েছে। মৌসুমীকে ‘ডিস্টার্ব’ করার অভিযোগে ওই অনুষ্ঠানে ঢুকেই জায়েদ খানকে চড় মারেন বলে জানিয়েছেন ওমর সানী নিজেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published.