‘আমার সামনেই অপুকে মারতে থাকেন শাকিব খান’

‘শাকিব-অপুর ঘর ভেঙেছে নাকি আমার কারণে, এরকম অনেক কথা হয়েছে আমাকে নিয়ে। শাকিব ভাই বিভিন্ন টেলিভিশনসহ অনেক জায়গায় বলেছে যে, অপুকে আমি জায়েদের সঙ্গে হাতে নাতে ধরেছি!

শাকিব ভাইয়ের এমন কথায় আমি খুবই লজ্জিত হয়েছি। কারণ তিনি আমাদের সিনিয়র, কিভাবে অপু তার স্ত্রী হওয়ার পর এভাবে কথাগুলো বলতে পারেন তা আমি বুঝি না। এটা খুবই বাজে একটা কথা।’

সম্প্রতি একটি ফেসবুক লাইভ অনুষ্ঠানে এসে কথাগুলো বলছিলেন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান।অনুষ্ঠানে জায়েদ খান বলেন, ‘আমি একদিন রাত সাড়ে দশটায় গুলশানে অপু বিশ্বাসের বাসার নিচে তার বোনসহ কথা বলছিলাম। সেখানে আমি একটা সিনেমায় কাজ করার বিষয়ে কথা বলতে গিয়েছিলাম।

অপু তখন একজন স্টার তার সঙ্গে কাজ করার ইচ্ছা তো থাকতেই পারে। আর তখন আমরা জানতামও না যে সে (শাকিব খান) তার স্ত্রী ছিলো। বিষয়টি সেসময় গোপন ছিল। আমরা কথা বলছিলাম তখনই

শাকিব ভাই চলে আসেন, এসেই অপু বিশ্বাসকে মারতে শুরু করেছে। আমার সামনে অপুকে লাথি মারলো। তখন আমি শাকিব ভাইকে বললাম ভাই, এটা কী করলেন? আপনি একজন স্টার মানুষ।’

তিনি আরো বলেন, অপুকে মারার দৃশ্য অনেকেই দেখছিলেন। বাসার দারোয়ানরা দেখছিলো। তখন আমি ভাইকে সাইডে নিয়ে গিয়ে বললাম ভাই, আপনি একজন স্টার মানুষ; আপনি এসব করলে, দারোয়ান আছে, মানুষজন দেখলে কী বলবে? তখন শাকিব ভাই বলল, না না আমি আর ওর সাথে নাই। এই বিষয়টি নিয়ে

তিনি বিভিন্ন জায়গায় বলেছেন, আমি অপুকে জায়েদের সঙ্গে হাতেনাতে ধরেছি! এই কথাগুলো আমার কাছে খুব খারাপ লাগছে। তিনি একজন সিনিয়র শিল্পী; তিনি কিভাবে এটা বলতে পারলেন?

এদিকে চলচ্চিত্রের ১৮ সংগঠন শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদককে জায়েদ খানকে বয়কট করেছেন। অন্যদিকে চলচ্চিত্র থেকে বাদ দেওয়া ১৮৪ জন শিল্পীকে বাদ দেওয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছেন।

Author: Admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *